• নরসিংদী
  • রবিবার, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ; ০৩ মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

Advertise your products here

Advertise your products here

নরসিংদী  রবিবার, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ;   ০৩ মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
website logo

শিবপুর সোনাইমুড়ি পার্কে  ৯৫-৯৭ ব‍্যাচের বন্ধুদের শীত উৎসব 


জাগো নরসিংদী 24 ; প্রকাশিত: শুক্রবার, ২৬ জানুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১০:৩২ পিএম
শিবপুর সোনাইমুড়ি পার্কে  ৯৫-৯৭ ব‍্যাচের বন্ধুদের শীত উৎসব 

স্টাফ রিপোর্টার: পিঠা পছন্দ করেনা এমন লোক খুব কমই আছে। বাঙালির ইতিহাস-ঐতিহ্যর সাথে পিঠাপুলি অত্যন্ত নিবিড়ভাবে জড়িত। তবে পিঠা নিত্যদিনের খাবার না হলেও শীত আসলেই বাঙালির ঘরে ঘরে পিঠার ব্যাপক কদর বারে। আর সে পিঠা যদি হয় কোন উৎসব আয়োজনের তা হলে তো আনন্দের কোন কমতিই নেই।

তেমনই 'বন্ধু চিরদিনের অনুভৃতি হৃদস্পন্দনের" এই শ্লোলগানে শীতের উষ্ণ ভালোবাসা বন্ধু মহলের মাঝে ভাগাভাগি করতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক গ্রুপ ৯৫-৯৭ নরসিংদীর উদ্যোগে প্রতি বছরের ন্যায়ে এবারও উৎসবমুখর পরিবেশে শিবপুর উপজেলার সোনাইমুড়ি বিনোদন পার্কে আয়োজন করে 'শীত উৎসব' নামে বন্ধুদের এক মিলন মেলা।
আর এই মিলনমেলায় অংশ নেয় দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে ৯৫-৯৭ ব্যাচের প্রায় হাজারো বন্ধুরা।

পূর্ব নির্ধারিত রেজিষ্ট্রেশন ও সময় সূচি অনুসারে শুক্রবার (২৬ জানুয়ারি) রেজিষ্ট্রেশনকৃত ৯৫-৯৭ ব্যাচের বন্ধুরা দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে সকাল ৭টা থেকে হাজির হতে থাকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পাশে শিবপুর উপজেলার সোনাইমুড়ি পার্কে।

আর ওই বন্ধদের বরণ করতে সকাল ৭ টা থেকে উপস্থিত থাকে আয়োজক গ্রুপের সদস্যরা।
এদিকে এর আগের বৃহস্পতিবার দিনই মিলন মেলার উৎসবকে ঘিরে পার্কের দক্ষিণ পাশের উঁচু পাহাড়ের টিলাকে সাজানো হয়েছিল বর্ণিল সাজে। 

পাহাড়ের প্রতিটি গাছে গাছে দেওয়া হয়েছিল অংশ গ্রহণকারী বন্ধুদের ছবি সম্বলিত বিল বোর্ড।
স্থাপন করা হয়েছিল, বিশ্রাম কক্ষ ও বিগত দিনের ৯৫-৯৭ ব্যাচের যে সকল বন্ধুরা মৃত্যুর বরণ করেছেন তাদের স্মরণে শ্রদ্ধাজ্ঞলি বোর্ড।

উৎসবে প্রথম পর্বে অংশ গ্রহণকারী সকলের জন্য আয়োজকদের পক্ষ থেকে ছিল,কফি, খেজুরের রস, ভাঁপা পিঠা, চিতল পিঠা, পাটিসাপটা পিঠা, ফুল পিঠা, পান সুপারিসহ বিভিন্ন প্রকার খাদ্য সামগ্রি।

ফলের মধ্যে ছিল, পেয়ারা, বড়ই ও পাকা কলা। দুপুরের খাবারে ছিল ভুনা খিচুরি সাথে হাঁসের মাংস, মুরগির রোস্ট, বেগুনি, চাটনি ও কোল্ড ড্রিংকস।  

পাহাড়ের পশ্চিম পাশে স্থাপন করা স্টেইজ। সকাল থেকেই আয়োজন ছিল উন্মুক্ত মিউজিকে। বন্ধুদের ইচ্ছে মতো গান, কবিতা পাঠ ও অভিনয় মধ‍্যদিয়ে মিলনমেলা হয়ে উঠে আরো প্রাণবন্ত।

দুপুরে খাবারের বিরতির পর শুরু হয় বাধ্য যন্ত্রের তালে তালে নাচ ও গান। এতে মাতিয়ে তুলে পাহাড়ি পরিবেশ। বন্ধুরা যেন কিছুক্ষণের জন্য ফিরে যাই বন্ধুত্বের উষ্ণ ভালোবাসার তাদের হারিয়ে যাওয়া সেই শৈশব আমেজে।

বিকালে এ মিউজিকের তালে তালে সাথে ছিল, বন্ধুদের জন্য শুভেচ্ছা উপহার গ্রাম বাংলার মুড়ির মোয়া, বাতাসা, কদমা,কটকটি,নিমকি।
আর এ সব বিতরণে ব্যস্ত থাকে অনুষ্ঠানের আয়োজক পক্ষের নিয়োজিত স্বেচ্ছাসেবকরা।
অনুষ্ঠানকে ভূল-টুটিমুক্ত করতে পর্যবেক্ষণে ছিলেন, ৯৫-৯৭ ব্যাচের বন্ধু নরসিংদী জজ কোর্টের আইনজীবি মোশাররফ হোসেন,প্রলয়, দিপুসহ অনেকে।

শীত উৎসব আয়োজনে ছিলেন, ৯৫-৯৭ নরসিংদীর ফেসবুক গ্রুপের এডমিন ৯৫-৯৭ ব্যাচের বন্ধু আরবাতুজ্জামান প্রলয়।

সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছিলেন, সাখাওয়াত হোসেন খাঁন বাবু, জিয়াউল হক সবুজ, মোস্তাফিজুর দিপু, মুশফিকুর মনি, নাসির চৌধুরী ও আলমগীরসহ আরও অনেকে।
 

উৎসব / দিবস বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ