• নরসিংদী
  • বুধবার, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ০৭ ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

Advertise your products here

Advertise your products here

নরসিংদী  বুধবার, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ;   ০৭ ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
website logo

রায়পুরায় স্ত্রী হত‍্যার দায়ে স্বামী গ্রেফতার


জাগো নরসিংদী 24 ; প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ০৮ নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ০৪:৪০ পিএম
রায়পুরায় স্ত্রী হত‍্যার দায়ে স্বামী গ্রেফতার
গ্রেফতারকৃত সুজন মিয়া

স্টাফ রিপোর্টার: নরসিংদীর রায়পুরায় চাঞ্চল্যকর গৃহবধূ লাভলী বেগম হত্যা মামলার প্রধান আসামি  স্বামী সুজন মিয়া (৩৫)কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার  (৭ নভেম্বর) ফরিদপুর জেলার আটরশি এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে গত শনিবার (৫ নভেম্বর) দিবাগত রাতে স্ত্রী লাভলী আক্তারকে ছুরিকাঘাতে খুন করে গা ঢাকা দেয় সুজন মিয়া।

মঙ্গলবার (৮ নভেম্বর) নরসিংদী পুলিশ সুপার কার্যালয় এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) মো. আল আমিন।

গ্রেফতারকৃত সুজন মিয়া রায়পুরা উপজেলার মাহমুদপুর গ্রামের মজিবুর রহমানের ছেলে। দীর্ঘ ১৩ বছর পূর্বে পারিবারিকভাবে লাভলী আক্তার কে বিয়ে করে সুজন মিয়া।

সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জানায়, সম্প্রতি প্রবাস জীবন শেষ করে দেশে ফিরে আসে।  প্রবাসে থাকা অবস্থায় ও দেশে ফিরে সুজন মিয়া ঋণগ্রস্ত হয়ে পড়ে। এদিকে স্ত্রী লাভলী আক্তার মোবাইল ফোনে অন্য ছেলেদের সাথে কথা বলার কারনে তা সন্দেহ করতো স্বামী সুজন মিয়া।

এ নিয়ে তাদের মধ্যে প্রায় ই ঝগড়া বিবাদ লেগে থাকত।  গত শনিবার রাতে বাসায় ফিরে এলে তাদের স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে পরকিয়া নিয়ে ঝগড়া বিবাদ হলে এক পর্যায়ে আসামী সুজন মিয়ার তার স্ত্রী লাভলী বেগম(৩০)কে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে। পরবর্তীতে আসামী সুজন মিয়াসহ তার পরিবারের লোকজন সকলেই গৃহবধু লাভলী বেগমকে মৃত অবস্থায় একা রেখে পালিয়ে যায়। 

মোঃ আল আমিন মিয়া জানায়, গৃহবধূর লাভলী বেগমের হত্যার ঘটনায় নরসিংদীর পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজিম পিপিএম এর নির্দেশে ও দিকনির্দেশনায় আসামি গ্রেফতার নামে পুলিশ। রায়পুরা সার্কেল'র সহকারী পুলিশ সুপার সত্যজিৎ কুমার ঘোষ ও রায়পুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আজিজুর রহমানদ্বয়ের প্রত্যক্ষ সহযোগিতা ও তথ্য প্রযুক্তির সাহায্যে সহকারি পরিদর্শক আমিনুল ইসলাম গৃহবধূ লাভলী বেগম হত্যাকান্ডের অন্যতম সুজন মিয়াকে ফরিদপুর জেলার আটরশি এলাকা থেকে গ্রেফতার করে।

গ্রেপ্তারের পর আসামী সুজন মিয়াকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে আসামী সুজন মিয়া তার নিজের স্ত্রী গৃহবধূ লাভলী বেগমকে ছুরিকাঘাত করে হত্যার কথা প্রাথমিকভাবে স্বীকার করে। 

এদিকে গৃহবধূ লাভলী বেগম হত্যার ঘটনায় তার মা মাতা মালেকা বেগম সোমবার (৭ নভেম্বর) দিবাগত রাত্রে আসামী সুজন মিয়া সহ সুজন মিয়ার পিতা-মাতা ও অন্যান্যদের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলার একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করলে রায়পুরা থানায় তা মঙ্গলবার ৮ নভেম্বর মামলা হিসেবে রুজু করা হয়। যার মামলা নং-০৮, তারিখ-০৮/১১/২০২২।

আসামি সুজন মিয়াকে লাভলী আক্তার হত্যা মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে  আদালতে সোপর্দ করা হবে বলে জানায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আল আমিন।
 

আইন ও আদালত বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ