• নরসিংদী
  • মঙ্গলবার, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ১৬ জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

Advertise your products here

Advertise your products here

নরসিংদী  মঙ্গলবার, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ;   ১৬ জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
website logo

শিবপুরে ব্যবসায়ীকে গলাকেটে হত্যা : মূল আসামি গ্রেফতার


জাগো নরসিংদী 24 ; প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ১১:২৯ পিএম
শিবপুরে ব্যবসায়ীকে গলাকেটে হত্যা : মূল আসামি গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার: নরসিংদীর শিবপুরে সাইফুল ইসলাম (৪৫) নামে এক গরু ব্যবসায়ীকে গলাকেটে হত্যার ঘটনার মূলহোতা তাইজুল ইসলাম (২৮) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ব্যবসায়িক  লেনদেনের বিরোধের জেরেই এই হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে বলে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে নিশ্চিত করেছে।

বৃহস্পতিবার (১৪ সেপ্টেম্ব) দুপুরে নরসিংদী পুলিশ সুপারের কার্য্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান।

গ্রেফতারকৃত তাইজুল উপজেলার ত্রিশা এলাকার নূরুল ইসলামের ছেলে। অপরদিকে নিহত সাইফুল ইসলাম উপজেলার আইয়ুবপুর ইউনিয়নের সানখোলা গ্রামের হেলিম মিয়ার ছেলে। তিনি একজন গরু ব্যবসায়ী।

সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান জানায়, গথ রবিবার সকালে শিবপুর উপজেলার পঞ্চগ্রাম ঈদগাহ মাঠ থেকে সাইফুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তির দেহ থেকে মাথা বিচ্ছিন্ন করা মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এই ঘটনায় মামলা দায়ের করা হলে পুলিশ ঘটনার তদন্ত  শুরু করে। এরই ধারাবাহিকতায় তথ্যপ্রযুক্তি সহায়তায় মঙ্গলবার চলমান অভিযানের একপর্যায়ে পাবনা জেলার আটঘরিয়া থানার বাঁচামরা এলাকা থেকে হত্যাকান্ডের মূল হোতা তাইজুল ইসলামকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

পরে তদন্তে জানা যায়, নিহত সাইফুল ইসলাম'র সাথে গ্রেফতারকৃত তাইজুল গরুর ব্যবসার সাথে জড়িত ছিলেন। গত শনিবার টাকা-পয়সার লেনদেন নিয়ে সাইফুল  এবং  তাইজুল'র মধ্যে দ্বন্ধের সৃষ্টি হয়। ওই রাতে তাইজুল নিহত সাইফুলকে তার পাওনা পরিশোধ করার কথা বলে পঞ্চগ্রাম ঈদগাহ মাঠে ডেকে নিয়ে যায়।

পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী আগে থেকে উৎপেতে থাকা তাইজুলের সহযোগি সোলেমান, তারেকসহ আরেকজনের সহায়তায় সাইফুলের গলায় থাকা গামছায় টান দিয়ে মাটিতে ফেলে দিয়ে ধারালো দা দিয়ে উপর্যুপরি কুপিয়ে সাইফুলের দেহ থেকে মাথা আলাদা করে ফেলে রেখে যায়

পরবর্তীতে গ্রেফতারকৃত তাইজুলের দেখানো মতে ঘটনাস্থলের উত্তর পাশের কাজল'র ধানক্ষেত থেকে হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত দা ও পশ্চিম পাশের ধান ক্ষেত থেকে  সাইফুল ইসলামের ব্যবহৃত বাটন মোবাইল ফোন এবং তাইজুলের বাড়ি থেকে হত্যাকান্ডের সময় তার পরিহিত রক্তমাখা গেঞ্জি ও জিন্স প্যান্ট উদ্ধার করা হয়। 

গ্রেফতারকৃত আসামী তাইজুল ইসলাম হত্যাকান্ডে সরাসরি সম্পৃক্ততা স্বীকার করে বিজ্ঞ আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি প্রদান করেন। এঘটনায়  জড়িত অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।
 

আইন ও আদালত বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ